সুনামগঞ্জ ভূমি অফিসে সেবা প্রত্যাশীরা হয়রানীর শিকার

Ezazul Ezazul

Haque

প্রকাশিত: ১০:০১ পূর্বাহ্ণ, মে ১৮, ২০১৯ | আপডেট: ২:০৪:অপরাহ্ণ, জুলাই ২৫, ২০১৯

রুহুল ইসলাম মিঠু ঃ সুনামগঞ্জ সদর ভূমি অফিসের তহসিলদার মো: সোহেল আহমদ ও সহকারী কমিশনার বিশ্বজিৎ দেবের বিরুদ্ধে সিলেট বিভাগীয় কমিশনার বরাবর লিখিত অভিযোগ প্রদান করা হয়েছে।
অভিযোগে জানা যায়, তহসিলদার মো: সোহেল আহমদ সরকারী অফিসে চাকুরীতে বসে ক্ষমতার অপব্যবহার করে নিরীহ লোকজনকে কথায় কথায় ফাঁসানোর চেষ্টা করেন। সুনামগঞ্জ থানা সদরের হরিনাপাটির বখতিয়ার রাজা চৌধুরী বিগত ২০১৮ সালের ৮ আগষ্ট ও ৩০ মে তারিখে তহসিলদার সোহেল, ভূমি কমিশনার বিশ্বজিৎ দেবের বিরুদ্ধে সরকারের কাছে খাজনা পরিশোধ করতে ভূমি অফিসে গিয়ে তাদের হাতে নাজেহাল হন। বখতিয়ার রাজা চৌধুরীর স্ত্রীর গলায় জটিল সমস্যার কারণে চিকিৎসার টাকা যোগাড় করতে তিনি জমি বিক্রির উদ্দেশ্য করেন। এতে ৫ শতক ভূমি বিক্রির নিমিত্তে ২০১৮ সালের ২৬ এপ্রিল তিনি সুনামগঞ্জ সদর ভূমি অফিসে খাজনা দিতে যান। সেখানে বখতিয়ার চৌধুরী তার জমির খাজনা পরিশোধ করতে গেলে ঐ অফিসের উল্লেখিত কর্মকর্তা/কর্মচারীরা তাকে অপমান করে তাড়িয়ে দেন। তার খাজনাপাতির রশিদও তারা আটকিয়ে রাখেন। অভিযোগে আরো জানা গেছে, ঐ ভূমি অফিসের কর্মচারীরা ভূমির খাজনা আদায় করতে রশিদে লিখে দেন এক অঙ্ক, আর অবৈধ পন্থায় হাতিয়ে নেন বিরাট অঙ্কের টাকা। শুধু তাই নয়, পুরাতন খাজনার রশীদে ভূমির নতুন দাগ নম্বর লিখে দিয়ে অসৎ ফায়দা লুটে নেন। এতে সরকার তার খাজনার কাঙ্খিত লক্ষ্য অর্জনে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে এক শ্রেণীর দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তা/কর্মচারীদের কারণে। এ ধরনের ঘটনার কেউ প্রতিবাদ করলে ভূমি অফিসে আসা সেবা প্রত্যাশীরা মানসম্মান হুমকির সম্মুখীন হতে হয়। বখতিয়ার চৌধুরী গত বছর ৫ একর তদুর্ধ ভূমির খাজনা ১৩১৪৯০ নং রশিদে পরিশোধ করেন।


আরও পড়ুন